সৌদিআরবে গত এক সপ্তাহের মধ্যে বিভিন্ন অঞ্চলে আবাসিক এবং শ্রম আইন এবং সীমান্ত নি,রাপত্তা বিধি ল ঙ্ঘনকারীর অ ভিযোগে বাংলাদেশিসহ বিভিন্ন দেশের ১৩,৭০৯ জন নাগরিকদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

গত ৩০ শে ডিসেম্বর থেকে ৫ই জান,য়ারি পর্যন্ত নিরাপত্তা বাহিনীর বিভিন্ন ইউনিট এবং পাসপোর্টের জেনারেল ডিরেক্টরেট (জাওয়াজাত) দ্বারা পরিচালিত যৌথ মাঠ অভিযানের সময় এদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়।

সৌদি গণমাধ্যম সৌদি গেজেটের প্রতিবেদনের বরাতে জানা যায়, গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে ৭,১১৮ জন আবাসিক আইন লঙ্ঘনকারী, ৫,০১৫ জন সীমান্ত নিরাপত্তা বিধি লঙ্ঘনকারী এবং ১,৫৭৬ জনেরও বেশি শ্রম আইন লঙ্ঘনকারী অন্তর্ভ,ক্ত রয়েছে।

সৌদি আরবের সীমান্ত অতিক্রম করার চেষ্টা করার সময় মোট ৩৬৫ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে, যাদের মধ্যে ৪৫ শতাংশ ইয়েমেনি নাগরিক, ৫৩ শতাংশ ই থিওপিয়ান নাগরিক ২ শতাংশ অন্যান্য জাতীয়তার নাগরিক এবং ৭৫ জনকে সৌদির সীমান্ত অতিক্রম করে পালানোর চেষ্টা করার

জন্য গ্রে প্তার করা হয়। নিরাপত্তা বাহিনী লঙ্ঘনকারীদের পরিবহন এবং তাদের আশ্রয় দেওয়ার সাথে জড়িত ৭ জনকে গ্রেপ্তার করেছে।

আইন লঙ্ঘনকারীদের মধ্যে বর্তমানে শাস্তিমূলক ব্যবস্থার অধীন রয়েছে তাদের মধ্যে মোট ৯৪,১৭৫ জন, এদের মধ্যে ৮৪,৫৩২ জনেরও বেশি পুরুষ এবং ৯,৬৪৩ জন মহিলা রয়েছে। ৮৩,২২৬ জন লঙ্ঘনকারীদের মামলা তাদের নিজ দেশে নির্বাসনের জন্য ভ্রমণ নথি পাওয়ার জন্য তাদের কূট নৈতিক মিশনে রেফার করা হয়েছে।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সতর্ক করেছে যে, যেকেউ সীমান্ত সুরক্ষা বিধি ল,ঙ্ঘন করে কাউকে সৌদি প্রবেশের সুবিধার্থে ধরা পড়ে বা তাকে পরিবহন বা

আশ্রয় বা যে কোনও উপায়ে কোনও সহায়তা বা পরিষেবা সরবরাহ করে, তাকে সর্বোচ্চ ১৫ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হবে অথবা ১ মিলিয়ন

সৌদি রিয়াল পর্যন্ত জরিমানা করা হবে এবং যাতায়াত পরিবহন, আশ্রয়ের জন্য ব্যবহৃত বাসস্থান বা জেয়াপ্ত করা হবে, পাশাপাশি স্থানীয় মিডিয়াতে তাদের নাম প্রকাশ করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.