ওমর সানি ও মৌসুমীর পর এবার গণ মাধ্যমে মুখ খুললেন তাদের ছেলে ফারদিন। তিনি বাবার পক্ষ নিয়ে কথা বললেন।

ফারদিন গণমাধ্যমে বলেন, ‘আম্মু শুরুতে চাননি এটা নিয়ে কোনো ধরনের সমালোচনা হোক। তিনি যে বক্তব্য দিয়েছেন সেটি পরিস্থিতি ঠিক করার জন্য। আর এটা নিয়ে যেন কাদা ছোঁ ড়াছুড়ি না হয় সেজন্য কথাগুলো বলা।’

ফারদিন তার বক্তব্যে বাবা-মায়ের সম্পর্কের অবস্থান নিয়ে বলেন, ‘পরিবারে অনেক বিষয়ে মনোমালিন্য থাকে। আমিও বিয়ে করেছি। বিষয়গুলো বুঝি। আর এটা খুবই স্বাভাবিক ঘটনা। আব্বু-আম্মু দুজন চাচ্ছেন যেন বিষয়টা দ্রুত সমাধান হয়ে যায়। আমারও এমনটাই চাওয়া।’

জায়েদ খান প্রসঙ্গে ফারদিন বলেন, ‘জায়েদ খান সত্যিই আম্মুকে ডিস্টার্ব করেন। এছাড়া আরো অনেককেই করেন। সেই প্রমাণ আমিও দিতে পারি। কিন্তু সেটা করব না। আর তাকে কোনো ধরনের গু রুত্বও দিতে চাচ্ছি না।’

উল্লেখ্য, এই ঘটনার সূত্রপাত অভিনেতা ডিপজলের ছেলের বিয়ের অনুষ্ঠানে। সেখানে জায়েদ খানকে ওমর সানি চড় দিয়েছেন বলে অভিযোগ ওঠে। এর প্রতিক্রিয়া ওমর সানিকে জায়েদ খান পিস্তল দেখিয়ে গুলি করার হুমকি দেয় বলে জানা যায়। যদিও বিষয়টি ডিপজল ও জায়েদ দুজনই গণমাধ্যমে অস্বীকার করেছেন।

পরবর্তীতে জায়েদ খানের বিরুদ্ধে শিল্পী সমিতিতে লিখিত অ ভিযোগ জানান ওমর সানি। কিন্তু ঘটনার মোড় পাল্টে দেয় মৌসুমীর এক অডিও বার্তা। যেখানে জায়েদ খানকে নি র্দোষ দাবি করেছেন এই চিত্রনায়িকা। আর এর পর থেকে ওমর সানি ও মৌসুমীর সংসার ভাঙনের গুঞ্জনও ছড়িয়েছে।

সূত্র : ইউএনবি

Leave a Reply

Your email address will not be published.